১৪ আগস্ট ,শুক্রবার, ২০২০

  • দিনপ্রতিদিন ডেস্ক

  • ৯ আগস্ট ,বৃহস্পতিবার, ২০১৮

সুগন্ধি গাছ কারিপাতা


সুগন্ধি গাছ কারিপাতা


 

হিমালয়ের পাদদেশ থেকে শুরু করে সুন্দরবনসংলগ্ন জনপদেও দেখেছি কারিপাতার গাছ জন্মাতে। উত্তরপ্রদেশে গারোয়াল-কুমায়ূনের ঝাউবিথীর নিচে, ঠাকুরগাঁওয়ের বাঁশবনে, নড়াইলের কাশবনে, কুমিল্লায় বার্ডে ক্যাফেটেরিয়ার পাশে, দাকোপের সাহেবের আবাদে লোনা মাটিতে- কোথায় না দেখেছি গাছটাকে। তবে কারিপাতার রান্না তামিলনাড়ুর চিদাম্বরমে আন্নামালাই বিশ্ববিদ্যালয়ে খেয়ে তবেই না এর স্বাদ বুঝেছি। কারিপাতাগাছ এ দেশে পরিচিত গাছ হলেও সুগন্ধি গাছ হিসেবে এর ব্যবহার প্রায় নেই বললেই চলে। কারিপাতা এদেশে কোথাও কোথাও নিমভুতগাছ হিসেবে পরিচিত। বনে জঙ্গলে জন্মে, আপনা আপনি হয়। কেউ কখনো এ গাছ লাগায় না। এগাছ অবশ্য কেউ কেউ কবিরাজী কাজে ব্যবহার করে থাকেন। তবে এর সুগন্ধি পাতা ব্যবহার করে এদেশে কেউ কখনো রান্না করেন না। কিন্তু ভারতের তামিলনাড়ুতে গিয়ে কারিপাতা ছাড়া রান্না কেউ না খেয়ে ফিরে এসেছে এমনটি শোনা যায়নি। শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে দক্ষিণ ভারতে রান্নাকে সুগন্ধিযুক্ত করতে কারিপাতার ব্যবহার চলে আসছে। খাদ্যকে শুধু সুস্বাদু করাই নয়, এ পাতার কিছু ভেষজগুণও আছে। তাই আমাদের বুনো এ গাছটির পাতা তেজপাতার মতো মসলা হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে। আর এ গাছ চাষে আলাদা কোনো জমি দরকার নেই। বাড়ির আশপাশে যেসব বাগানের ভেতর ছায়া ছায়া ফাঁকা জায়গা পড়ে রয়েছে সেসব পতিত জায়গা ব্যবহার করে কারিপাতা উৎপাদন করে বাড়তি আয়ের সুযোগ সৃষ্টি করা যেতে পারে। 

গাছের পরিচয়: 
মূলত কারি বা ঝোল তরকারি রান্নার জন্য এ গাছের পাতা ব্যবহার করা হয় বলে এর ইংরেজি নাম কারি লিফ, বাংলায় কারি পাতা। বাংলায় স্খানীয় কিছু নামও আছে- নিমভুত, বারসাঙ্গা ইত্যাদি। তামিল ভাষায় বলে কারিভেম্পু, তেলেগুতে কারেপাকু। হিন্দিতে বলে কাঠনিম, মিঠানিম, গোরানিম, গাধেলা, কারি পাত্তা ইত্যাদি। উদ্ভিদতাত্ত্বিক নাম abcdr, পরিবার রুটেসী। অর্থাৎ কারি পাতা ও কামিনী ফুলের গাছ একই গোত্রের। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৫০০ মিটার উঁচুতেও কারিপাতাগাছ জন্মাতে পারে। গাছ মাঝারি উচ্চতার, উচ্চতায় ৫-৬ মিটার হয়। পাতা দেখতে অনেকটা নিম পাতার মতো। পাতায় সালফারঘটিত এক ধরনের উদ্বায়ী তেল থাকার কারণে সুন্দর ঝাঁঝাল গন্ধ আসে। কাঁচা পাতা ডললে পাতা থেকে গোলমরিচ, লবঙ্গ, মরিচ, আদা ইত্যাদি মসলার মিশ্রিত এক প্রকার ঘ্রাণ বের হয়। এই সুগন্ধির জন্যই কারিপাতা রান্নায় মসলাপাতা হিসেবে ব্যবহৃত হয়। পাতা পক্ষল ও যৌগিক, নিমপাতার মতোই। তবে পাতাগুলো ডালের মাথা থেকে চারদিকে সূর্যের রশ্মির মতো ছড়িয়ে পড়ে। তাই পত্রবিন্যাস সুন্দর দেখায়। প্রতিটি পাতায় অনুপত্রকের সংখ্যা ৯-১৫টি। অনুপত্রকের কিনারা খাঁজকাটা, অগ্রভাগ সূচালো। ডালের মাথায় পুষ্পমঞ্জরীতে সাদা রঙের ফুল ফোটে, ফুলেও সুগন্ধ আছে। ফেব্রুয়ারি থেকে মে মাসের মধ্যে ফুল ফোটে। ফুল থেকে নিমের মতো ফল হয়। ফল ডিম্বাকার থেকে গোলাকার, কাঁচা ফলের রঙ সবুজ। পরিপক্ব হওয়ার সাথে সাথে লালচে থেকে কালো হয়ে যায়। বীজ থেকে সহজে চারা হয়। 

ব্যবহার: 
সুগন্ধি মসলা হিসেবে সবুজ পাতা রান্নায় ব্যবহার করা যায়। পাতায় ৬.১% প্রোটিন, ১.০% তেল, ১৬% শ্বেতসার, ৬.৪% আঁশ ও প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ এবং ভিটামিন সি (৪ মিলিগ্রাম/১০০গ্রাম পাতা) আছে। কাঁচা কারিপাতা কয়েকটা পানিতে ধুয়ে রান্নার সময় তার ভেতরে ছিঁড়ে দিলে রান্নায় সুঘ্রাণ ও ঝাঁঝ আসে। গরু ও খাসির গোশত, মিশ্র সবজি, ডাল ইত্যাদি কারিপাতা দিয়ে রান্না করা যায়। কারিপাতা শুকনো করে গুঁড়ো হিসেবে কারি পাউডার তৈরি করা যায়। বোতলে ভরে রেখে রান্নার সময় তা ব্যবহার করা যায়। তবে কাঁচা পাতায় ঘ্রাণ বেশি। 
কারিপাতা, গাছ, শিকড় সবই ভেষজ গুণসম্পন্ন। গাছের শিকড় অর্শ রোগে উপকারী। আমাশয় ও ডায়রিয়া সারাতেও কারিপাতা ওস্তাদ। কয়েকটা সবুজ পাতা চিবিয়ে খেলে এটা সেরে যায়। পাতা সেঁকে ও তা থেকে ক্বাথ তৈরি করে খেলে বমিভাব দূর হয়। রেচনতন্ত্রের ব্যথা দূর করতে পাতার রস সেবন করতে পরামর্শ দেয়া হয়। শরীরের কোথাও কোনো বিষাক্ত পোকা কামড়ালে কাঁচা কারিপাতা ডলে সেখানে লাগালে দ্রুত উপশম হয়। যকৃতের কঠিন ব্যথা সারাতে রোগীদের কারিপাতা গাছের শিকড়ের রস খাওয়ানো হয়। শুধু পাতা নয়, এর ফলও খাওয়া যায়। বীজ থেকে যে তেল পাওয়া যায় তার গন্ধ অনেকটা নারকেল তেলের মতো আর স্বাদ মরিচের মতো ঝাঁঝালো। তেল জিহ্বায় স্পর্শ করলে ঠাণ্ডা মনে হয়। 

চাষাবাদ: 
বীজ থেকে প্রথমে চারা তৈরি করে নিতে হবে। বর্ষার শুরুতে ২-৩ মিটার পর পর জমিতে চারা লাগাতে হবে। চারা লাগানোর জন্য সবদিকে আধা মিটার আন্দাজে গর্ত তৈরি করে গর্তের মাটির সাথে এক ঝুড়ি গোবর সার মিশিয়ে সপ্তাহ দুয়েক রেখে দিতে হবে। জুন-জুলাই মাসে চারা লাগাতে হবে। প্রতি বছর জুলাই মাসে একবার গাছপ্রতি ১০০-২০০ গ্রাম ইউরিয়া সার দিতে হবে। খরার সময় সেচ দিলে উপকার হয়। গাছের বয়স ১৫ মাস হলেই গাছ থেকে পাতা তোলা শুর করা যায়। কচি পাতা না তুলে গোড়ার দিক থেকে বয়স্ক পাতা তুলে আঁটি বেঁধে বাজারে বেচতে পাঠাতে হবে। ঘরোয়া ব্যবহারের জন্য একটা দুটো গাছই যথেষ্ট। বাণিজ্যিকভাবে চাষের আগে এর বাজার সম্বন্ধে নিশ্চিত হতে হবে। এ গাছে সহজে কোনো রোগ পোকা আক্রমণ করে না।


  • উৎসর্গঃ প্রয়াত সোহেল পারভেজ ভাই (ভুয়াপুর, টাঙ্গাইল), প্রয়াত শরিফুল ইসলাম শাওন (কোলাহা, ঘাটাইল, টাঙ্গাইল)
  • প্রতিষ্ঠাতা উপদেষ্টাঃ মামুন মিয়া ।
  • সম্মানিত উপদেষ্টা মণ্ডলীঃ মনিরুজ্জামান খান মনির (সিঙ্গাপুর/ হেনা গ্লোবাল), আজহারুল ইসলাম (সিঙ্গাপুর/ এ টি এন ট্রাভেল),শওকত হোসেন তারেক, হেলাল উদ্দিন সিকদার, এনামুল করিম সুজন, রনক ইকরাম, আহসান কবির (কণ্ঠ শিল্পি) ।
  • বিশেষ কৃতজ্ঞতাঃ সামসাদ হসাইন রোজেন ।
  • কৃতজ্ঞতাঃ এ কে এম কামরুজ্জামান ভাই (ভিভিধ হলিডেজ) আতাউল হক, আতাউর রহমান মিন্টু, মেহেদি হাসান রফিক, রায়হান ফ্লেমিং (কণ্ঠ শিল্পি), প্রদীপ্ত বাপ্পি (কণ্ঠ শিল্পি), মোঃ গাজী নাজমুল নীরব, আলামগির হোসেন (বেরাইদ)।
  • আইন উপদেষ্টাঃ এড মোঃ রফিকুল ইসলাম।
  • প্রধান সম্পাদকঃ রহিম শাহ্‌।
  • প্রধান নির্বাহী সম্পাদকঃ সামছুল আরেফিন সোহেল ।
  • সম্পাদকঃ মঈন মুরসালিন ।
  • প্রকাশক এবং প্রধান নির্বাহীঃ স্বপন মিয়া ।
  • প্রধান কার্যনির্বাহীঃ সৈয়দ আবু তাহের (আয়রন) ।
  • হেড অফ বিজনেস অ্যান্ড প্লানিংঃ মুহাম্মাদ আব্দুল্লাহ খান মাসুম ।
  • হেড অফ কমিউনিকেশনঃ 
  • হেড অফ মার্কেটিংঃ 
  • ফিচার সম্পাদকঃ 
  • বিশেষ বিভাগীয় প্রতিনিধি (ঢাকা)ঃ সৈয়দ সরোয়ার সাদী (রাজু) ।
  • বার্তা সম্পাদকঃ রশিদ নিউটন ।
  • ক্রিয়েটিভ আর্ট ডিরেক্টরঃ মোঃ গাজী নাজমুল নীরব ।
  • সিটিওঃ 
  • বিভাগীয় প্রধানঃ গোলাম মোস্তফা তালুকদার (ঢাকা), ইয়াসিন (চট্টগ্রাম) ।
  • ঢাকা রিপোর্টারঃ ।
সুরকার আলাউদ্দীন আলী মারা গেছেন
মধ্যরাতে স্বাভাবিক গতিতে ফিরল ইন্টারনেট
প্রতারণার জাদুকর সাহেদ
ফাহিম হত্যা এবং মার্কিন সংবাদ মাধ্যম
ফাহিম সালেহর মৃত্যুতে গভীর শোক আইসিটি প্রতিমন্ত্রীর
সাবরিনাকে ডিবিতে হস্তান্তর
বিএনপি নেতা শাহজাহান সিরাজ মারা গেছেন
মহাপরিচালকের (ডিজি) অনুরোধে রিজেন্ট হাসপাতালের সঙ্গে চুক্তির অনুষ্ঠানে ছিলেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।
কোয়ারেন্টাইন মুক্ত হলাম, কোনো অভিযোগ নেই: ডা. ফেরদৌস
ভোমরা বন্দর দিয়ে আসছে ৮০ ট্রাক পেঁয়াজ
পেঁয়াজের কেজি ১২ টাকা!
মনের কথা পড়তে পারে ‘রোবট স্যুট’
শাকিবের প্ররোচনায় আত্মহত্যার স্ট্যাটাস: মিষ্টি জান্নাত
হাসিনা-মোদী বৈঠকে বাংলাদেশ-ভারত ৭ চুক্তি
পেঁয়াজ খাওয়া ছেড়েছেন প্রধানমন্ত্রী
অনেক না বলা কথা বলবেন অপু বিশ্বাস
ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাঙ্কিংয়ে আমির
সর্বনিম্ন ইন্টারনেট গতিতে বাংলাদেশ ১০ম
ভারত-পাকিস্তান তীব্র উত্তেজনা
ইমরান খানের বক্তব্যকে আবর্জনা বললেন সৌরভ গাঙ্গুলি
প্রিয়াঙ্কা গান্ধী আটক
জিম্বাবুয়েকে বিদায় করে দিলো আইসিসি
অবশেষে বিশ্বকাপজয়ী কোচ পেলেনে সাকিবরা
বিশ্বকাপের সেরা ১০ মুহূর্তের তালিকায় ৪র্থ স্থানে সাকিব
যেসব মায়েরা নিজ সন্তান হত্যা করেন
রিফাত হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে যা বললেন মিন্নি
অ্যামাজনে বাংলাদেশের পতাকার আদলে অন্তর্বাস
‘নয়নের বাড়িতে বসেই স্বামীকে হত্যার পরিকল্পনা করেন মিন্নি’
রিফাতকে 'একটু টাইট' দিতে চেয়েছিল মিন্নি!
যে কারণে হঠাৎ আলোচনায় নয়ন বন্ডের মা
এইচএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ, পাশের হার ৭৩.৯৩
প্রধান সাক্ষী থেকে যেভাবে আসামি হলেন মিন্নি
এরশাদের সুসময়ের সেই ঘনিষ্ঠজনরা এখন কে কোথায়?
ফাইনালের সেই 'বিতর্কিত থ্রো' নিয়ে যে ব্যাখ্যা দিল আইসিসি
রোহিঙ্গাদের অবশ্যই ফিরিয়ে নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
দেখে নিন আইসিসির বিশ্বকাপ একাদশ
বাউন্ডারির সংখ্যা সমান হলে কি হত দেখে নিন
ক্রিকেট বিশ্বের নতুন চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড
কত কোটি টাকার সম্পদ রেখে গেলেন এরশাদ?
মিন্নির বাবা দিলেন নতুন তথ্য, রহস্য আরও বেড়েছে!
পবিত্র কোরআন ও আহলাল বাইতের প্রেমবন্ধন
ছবি তোলা ও বাঘ সংরক্ষণ
মনোনয়নদৌড়ে পিছিয়ে নেই ‘তারকারা’ ও...
তোমার কি বন্ধু মন খারাপ?
শ্রাবন্তী বাংলাদেশে শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা নিয়ে যা বললেন
খোলামেলা পোশাকে ‘নির্লজ্জ’ সোনাক্ষী!
বাগদানের আংটি ফেরত চেয়ে আদালতে মামলা!
গ্রেপ্তার পর্নো তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলস
চুলে ফুলের ছোঁয়া
লাউ চাষ
আমার বয়স ৪৬ নয় : জয়া
সুগন্ধি গাছ কারিপাতা
শ্রাবন্তীর অজানা ১০ খবর
স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ টিভি দেখার সময়
পাঁচ লড়াকু মেয়ের গল্প ‘ক্রিসক্রস’
চা পাতা ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাবে
মোবাইল নাম্বার দিয়ে কারো পরিচয় বের করবেন যেভাবে
ঘরেই সংরক্ষণ করুন পাকা আম
বিপাকে আছেন সোনাক্ষি
মম ও ইরফানের নাটক ‘আপন আলয়’

সব খবর